মেয়েদের কে বিশ্বাস করার ফল


একটি মেয়ে একটি ছেলেকে খুব ভালোবাসতো।
মেয়েটি তার ভালোবাসার কথা ছেলেটিকে জানাল, ছেলেটিও তার কথায় সম্মতি জানাল।
কারন, ছেলেটিও মেয়েটিকে মনে মনে ভালোবাসতো কিন্তু বলতে পারছিল না।
এভাবে কিছু দিনের ভিতর ছেলেটি মেয়েটিকে সত্যিই খুব ভালোবেসে ফেলল।
মেয়েটি ছেলেটাকে বলত,
"আমার হৃদয় আমি তোমাকে দিয়ে দিয়েছি, আমার দেহে হৃদয় নেই।"
কিন্তু মেয়েটি হটাত একদিন তাকে বলল,
"আমার বাবা-মা আমার বিয়ে ঠিক করেছেন, আমাকে বলেছে, আমি যদি ঐ ছেলের সাথে বিয়ে না করি তাহলে বাবা আত্মহত্যা করবেন।
মা, বাবা, এমনকি আমার দাদা ও বাড়ির সবাই আমার সাথে কথা বলছেনা।
আমি তোমাকে খুব ভালোবাসি কিন্তু তোমাকে বিয়ে করতে পারব না।
আমি সত্যিই দুঃখিত কিন্তু আমাকে ঐ ছেলের সাথেই বিয়ে করতে হবে, আমরা সারা জীবন বন্ধু থাকব।
ছেলেটি শুধু বলল, ঠিক আছে।
.
.
.
এরপর বিয়ের দিন বিয়ে সুরু হল।
অনেক গান-বাজনা, হৈ-হুল্লোড় করে বিয়ে শেষ হল।
পরের দিন সমস্ত উপহারের স্তুপের পাশে মেয়েটি ছেলেটির নাম লেখা একটি উপহারের প্যাকেট দেখতে পেল।
মেয়েটি খুসি মনেই প্যাকেটটি খুলছিল, প্যাকেট খোলার পর প্রথমে তার ভিতর একটা সাদা কাগজ পেল।
তাতে লেখা "তুমিই একদিন বলেছিলে, আমাদের দুজনের একটি মাত্র হৃদয়। আর তুমিই সেটা নিয়ে গেলে...!"
এ কথার মানে মেয়েটা বুঝেছিল, সে চিৎকার করে কান্না করতে লাগল...
কিন্তু কেঁদে আর কি হবে, যা হওয়ার তা তো হয়েই গেল।
আশা করি সাবার ভাল লাগল গল্পটা।
আপনাদের মতামত মন্ত্যব্য করে জানাবেন।
আর একটা কথা, সব মেয়েরা কিন্তু একরকম না।

0 comments:

Post a Comment