এই গানটি গেয়ে দেখুন, মজা পাবেন


আপনাদের ওখানে বৃষ্টি হচ্ছে কিনা জানিনা।
তবে আমাদের এখানে তো থামছেই না, এখনো হচ্ছে।
আমার ভালোই লাগছে, কারন বৃষ্টিতে কারেন্ট যায় না, আর এটা থাকলে আমার আর কিছু দরকার পড়েনা।
এই বৃষ্টির মধ্যে গান গাইতে তো ভালোই লাগবে, তাহলে শুরু করা যাক এবার।
আমাকে আমার মত থাকতে দাও। ও বাব্বা! হেব্বি স্বার্থপর তো।।
আমি নিজেকে নিজের মত গুছিয়ে নিয়েছি । এতো ছকবাজ জান্তাম না।।
যেটা ছিলনা ছিলনা সেটা না পাওয়ায় থাক। ভেতরে ভেতরে হতাশা ভর্তি।।
সব পেলে নষ্ট জীবন। আঙ্গুর ফল টক।।
তোমার ঐ দুনিয়ার ঝাপসা আলোয়। গুরু চশমা নাও।।
কিছু সন্ধ্যের গুড়ো হাওয়া কাঁচের মত। এতো ম্যাটার ওয়েভ থিওরী।।
যদি উড়ে যেতে চাও তবে গা ভাসিয়ে দাও। ঠিক করে বলো - হাওয়ায় না জলে। গুলিয়ে যাচ্ছে।।
দুরবিনে চোখ রাখবো না.. না না না না না।  চোখ ঠিক নেই। দূরবীণ কি করবে।।
এই জাহাজ মাস্তুল ছারখার। এতো দেখি ক্যাসাব্ল্যানকা।।
তবু গল্প লিখছি বাঁচবার।  জাহাজে আগুন লেগেছে। এটা কি গল্প লেখার সময়।।
আমি রাখতে চাই না আর তার। মানে।।
কোন রাত–দুপুরের আবদার। পরিষ্কার করে বলুন।।
তাই চেষ্টা করছি বার বার সাঁতরে পাড় খোঁজার। জাহাজে লাইফ জ্যাকেট ছিলো না।!
কখনো আকাশ বেয়ে চুপ করে। আকাশ কি ঢালু?!
যদি নেমে আসে ভালবাসা খুব ভোরে। আকাশ থেকে নামার সিঁড়িও আছে!!
ঘুম ভাঙ্গা চোখে তুমি খুঁজো না আমায়। বয়ে গেছে।।
আসে পাশে আমি আর নেই। জানতাম চিট করবে।।
আমার জন্য আলো জ্বেলো নাকো কেউ। চান্স নেই। লোড শেডিং।।
আমি মানুষের সমুদ্রে গুনেছি ঢেউ। কোনো কাজ নেই।।
এই স্টেশন চত্ত্বরে হারিয়ে গিয়েছি। স্টেশন মাস্টারের সাথে দেখা কর।।
শেষ ট্রেনে ঘরে ফিরবো না। বাড়ি ফিরলে প্যাঁদানি।।

ভালো না লাগলে আমি কি করব!!
না, দাড়াও আর একটা জোকস দিচ্ছি, পড়ে যাও।
একটা মেয়ে পরচিত এক কাপড়ের দোকানে কেনাকাটা করতে গিয়েছে...
মেয়েঃ দাদ, এই জামাটার দাম কত?
দোকানদারঃ চালাকি করে বলল, পাঁচটা কিস।
মেয়েঃ ঐ জামাটার দাম কত?
দোকানদারঃ দশটা কিস।
মেয়েঃ দুটোই প্যাক করে দাও।
দামটা আমাদের কাজের মাসি দিয়ে যাবে। :D

0 comments:

Post a Comment