হাইকোর্টের উকিল - মজার গল্প


আজকের মজার গল্পের নাম তো বুঝতেই পারছেন।
তাহলে শুরু করছি আজকের গল্প "হাইকোর্টের উকিল"।
মধ্য রাতে শহর থেকে অনেক দুরে হাইকোর্টের এক উকিলের গাড়ি বিগড়ে গেল।
অনেক খোজাখুজির পর একটা ফার্ম হাউজের সাইন বোর্ড চোখে পড়ায় একটু আশার আলো দেখতে পেলেন তিনি।
সেই ফার্ম হাউজের দিকে গেলেন একটু সাহায্যের প্রত্যাশায়।
সেখানে গিয়ে ডাকাডাকি করতেই এক সুন্দরী মহিলা বেরিয়ে এলেন - "দেখুন আমি এখানে একা থাকি, গ্যারেজ তো আর সকালের আগে খুলবে না, কারণ ওরা গ্যারেজ বন্ধ করে চলে গেছে।"
আপনাকে সকাল পর্য্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।
উকিল বললেন - ঠিক আছে, কিন্তু আমি আপনার কাছে অনুরোধ করছি পুরো রাতটা কাটাবার জন্য দয়া করে আমাকে একটু স্থান দিন।
সুন্দরী মহিলা বললেন - কিন্তু স্যার, আমি যে এখানে একা থাকি।
উকিল বললেন - আপনার ভয় পাবার কোন কারণ নেই, আমি একজন হাইকোর্টের উকিল।
সুন্দরী মহিলাটি বললেন - কিন্তু স্যার, এখানে শুধু একটাই বেডরুম আছে এবং সেটা আমি ব্যবহার করি।
উকিল বললেন - বললাম তো ভয়ের কিছুই নেই, আমি হাইকোর্টের উকিল।
তখন তারা দুজন বেডরুমে ঢোকার পর মহিলাটি বললেন - কিন্তু স্যার এখানে তো একটাই বেড আছে!
উকিল বললেন - ভয়ের তো কিছু নেই, আমি হাইকোর্টের একজন উকিল।
অতপর তারা একজন আরেকজনের দিকে পিছন ফিরে একই বেডে শুয়ে রাতটা কাটিয়ে দিলেন।
পরদিন সকালে উঠে উকিল ওই মহিলার সাথে ফার্ম হাউজের দিকে এক চক্কর দিলেন। তারা দেখলেন ফার্ম হাউসের পাশে একটা মুরগির খাঁচা পড়ে আছে, খাঁচাটির কাছে গিয়ে উকিল দেখলেন, সেখানে ২০ টা মুরগী আর ৬০ টি মোরগ রয়েছে, উকিলের মনে একটা খটকা লাগলো।
তিনি ওই মহিলাটিকে বললেন - ৬০ টা মোরগ আর মাত্র ২০ টা মুরগী!  আপনার মনে কি কোন খটকা লাগছে না?
মহিলাটি বললেন - এতে খটকা লাগার কি হলো? তাছাড়া এই ৬০ টি মোরগের মধ্যে মাত্র ১০ টিই কাজের।
উকিল জিজ্ঞেস করলেন - তাহলে বাকি ৫০ টা?
মহিলাটি বলল - বাকীরা সব হাইকোর্টের উকিল। :D :D

0 comments:

Post a Comment