ম্যাগি পাঁচালি


পাঠকদের কাছে অনুরোধ লক্ষীর পাঁচালির মতন সুর করে পড়ুন।
আশা করি খুব ভালো লাগবে।
তাহলে,
এবার সুরু করা যাক...
ঘরে ঘরে হাহাকার, বুক ভরা ব্যথা,
শোন সবে বলি আজি ম্যাগি ব্রতকথা।
যে জন পড়িবে ব্রত দিয়া প্রাণ মন ,
অন্নপূর্ণা-র কৃপা দৃষ্টি পাইবে অনুক্ষণ!
অগাধ সুস্বাদু ম্যাগি আসিল জীবনে,
মর্তবাসী পড়িলো প্রেমে, নিশ্চিন্ত মনে।
ভাত ডাল রাঁধিবার নাহি প্রয়োজন,
দুমিনিটে ম্যাগি হয়, খুশি জনগণ!
পিতামাতা রাগি কহেন খাও ভাত বসে,
শিশুগণ ম্যাগি চায়, ফোলে গাল রোষে!
অতঃপর পিতামাতা মানিয়া নেন হার,
ম্যাগি -র জিত হয়, অতি অবিচার।
ঘরে ঘরে শুরু হয় ম্যাগি-র জয় গান,
অবিদিত মর্তবাসী পুলকিত প্রাণ।
দুমিনিটে ম্যাগি  রাঁধো সহজ উপায়,
ছেলে বুড়ো সকলেই খুশি মনে খায়!
হোস্টেলে ম্যাগি যেন মায়ের আশির্বাদ,
ক্ষুদার্ত ছাত্রদের বন্ধ আর্তনাদ।
ভোলাভালা প্রজাগণ রাখেনা খবর ,
জানেনা খুঁড়িছে তারা নিজের কবর!
লক্ষিরে উপেক্ষা করি, ডাকিতেছে যম ,
স্বেচ্ছায় বিষ পান, হায় বুঝিতে অক্ষম!
ভেজাল খেয়ে বড় হয় মর্তবাসীর ছানা,
বিশুদ্ধ কাহারে কয় নেই তাদের জানা !
দৈবযোগে করিল টেস্ট কোনো সুধিজনে,
দুখী হলো মর্তবাসী ম্যাগি-র পতনে।
ম্যাগিতে যে ঠেসে ভরা ক্ষতিকর সীসা ,
শুনি সব গুনি জনে হারাইল দিশা!
ধনমদে মত্ত নেসলেকরিয়াছে হেলা,
ঢালিয়াছে বিষ পেটে , অসাধু এ খেলা!
বুদ্ধিমান অমিতাভ ও পড়িলেন এ ফাঁদে ,
অলৌকিক ম্যাগি খাইয়া জয়া দেবী কাঁদে!
মাধুরী মোহিনী তবুও জড়াইল কেস-এ,
খেয়েছিল এক বাটি বিজ্ঞাপনের শেষে!
গাল ভরা টোলে আজ ডুবিয়া প্রীতি জিনটা,
এদিকে সিনেমা নেই তারউপর এই চিন্তা!
না জানিয়া শুনিয়া কেন করা বিজ্ঞাপন?
অভিযুক্ত হলেন এরা, ঝামেলা অকারণ!
ভয়ে ভয়ে মর্ত হোতে বিদায় নিলো ম্যাগি,
আবেগপ্রবণ মর্তবাসী হন গৃহত্যাগী।
ফেসবুকে  স্নৃতিচারণ, সেকি হাহাকার,
ম্যাগি প্রেমী মর্তবাসী করিছে প্রচার।
সুস্বাদু হইলেই তাহা হিতকর নয়,
লোভ মোহ ত্যাগই হলো জীবনের জয়!
স্বাস্থকর খাইয়া ভালো থাকো ভক্তগণ,
অন্নতে ফিরে যাও, করো লক্ষীর পূজন।
ম্যাগির ব্রতকথা হইলো সমাপন,
ভাত ডাল খেয়ে বাঁচো, জয় লক্ষীনারায়ণ!
সমাপ্ত
কেমন লাগলো, জানাতে ভুলবেন না।


যে যায় বলুক, আমি কিন্তু ম্যাগিকে খুব মিস করছি।
মাঝে মাঝেই খেতে ইচ্ছা করে।

2 comments:

  1. Maggi akhon ar ager moto paoya gacche na kintu yipee o meggi r moto khete lage.

    ReplyDelete