মোবাইলটাই আমার গার্লফ্রেন্ড


কে বলেছে আমি সিঙ্গেল?
আমি সিঙ্গেল নাতো। আমার গার্লফ্রেন্ড হিসাবে আছে আমার মোবাইলটা।
ওর ক্ষিদে লাগলে ওকে চার্জ খাওয়াই। ফাষ্টফুড হিসেবে খাওয়াই ব্যালেন্স। এভাবেই পকেট ফাঁকা হয়ে যায়।
কখনো যদি আবদার করি, "জানু, একটা গান শোনাও না।"
সে আমাকে আমার পছন্দের গান শোনায়।
যদি বলি অরিজিৎ সিং এর গলায় একটা শুনাও। সেটাও সে শোনায়।
আবার শুভমিতার কন্ঠে শোনাতে বললে সে শুভমিতার কন্ঠেও গান শোনায়।
তাকে সারাদিন টাচ করি। সে রাগ করে না। Kiss করি তবুও সে রাগ করে না।
তবে বকুনি দিলে অবশ্য মাঝে মাঝে রাগ করে দরজা জানালা বন্ধ করে দেয়।
তারপর ঘরোয়া চিকিৎসায় রাগ না কুমলে ডাক্তার দেখিয়ে রাগ ভাঙাই।
ওকে ছাড়া এক মূহুর্ত ভাবতেই পারিনা।
যেখানেই যাই সঙ্গে নিয়ে যাই।
সে লিপস্টিক লাগিয়ে,  ড্রেস পরে বের হতে দেরী করে না।
কোথাও নিয়ে গেলে আবদারও করে না। বিপদের সঙ্গী আমার এই মোবাইলটা।
অতঃপর আমি তাকে নিয়ে সুখী।
বাচ্চাদের ভালো লাগতেও পারে লেখাটা।
না লাগলে মন্ত্যব্য করে জানিয়ে দিতে পারেন, তাহলে এইরকম লেখা আর দেব না।

0 comments:

Post a Comment