টেট যাত্রীদের জন্য বিজ্ঞপ্তি


TET যাত্রীদের জন্য বিশেষ নির্দেশিকা
১) হাতে পাউডার লাগিয়ে বাড়ি থেকে বেরোবেন। নইলে ট্রেন থেকে ঝোলার সময় হাত স্লিপ করে যেতে পারে।
২) জামাকাপড় পরবেন না। কারণ আপনার জামাকাপড় ধরে যে কেউ ঝুলে পড়তে পারে।
৩) গায়ে তেল মেখে বার হবেন। তাহলে ট্রেনে ওঠার সময় ভিড়ের মধ্যে সহজে গলে যেতে পারবেন।
৪) মাথা ন্যাড়া করে নেবেন। নইলে ভিড়ের মধ্যে ঝোলার সময় আপনার চুল ধরে অনেকে টানাটানি করতে পারে।
৫) যাত্রার সময় মাথা ঠান্ডা রাখবেন। শান্ত থাকবেন। অকারণ চেঁচামেচি বা হৈহুল্লোর করবেন না। তাতে পদপিষ্ট হয়ে মৃত্যুর সম্ভাবনা রয়েছে।
৬) সহযাত্রীদের সাথে খারাপ আচরণ করবেন না। একে অপরকে এগিয়ে যেতে সাহায্য করবেন। এতে আপনার পূণ্য হবে। মনে রাখবেন টেট দেওয়াটা জীবনের একমাত্র লক্ষ নয়। টেটযাত্রায় অংশগ্রহন করাটাই একটি অতি পূণ্যের কাজ। তাই ধৈর্য হারাবেন না।
৭) “টেট যাত্রা”-কে যেকোন বড় ধরনের তীর্থযাত্রার সমান স্টেটাস দেওয়া হয়েছে। বলা হচ্ছে, টেট যাত্রার সময় যদি কারোর পথে মৃত্যু বা ইন্তেকাল হয় তাহলে তিনি সরাসরি স্বর্গে পৌঁছে যাবেন।
৮) “টেট শহীদ”-দের রাষ্ট্রীয় সম্মান দেওয়া হবে। প্রত্যেক “টেট শহীদ”-এর পরিবারকে “টেটশ্রী” নামক দু’হাজার টাকা মাসিক ভাতা দেওয়া হবে।
৯) টেটযাত্রা-কে নিরাপদ এবং সফল করার জন্য “টেট-টার্গেট” নামক জপের মালা পাওয়া যাচ্ছে। যাত্রাকালীন মালা জপতে জপতে টেট দেবী-র নাম স্মরণ করতে করতে এগিয়ে যাবেন।
১০) পথে কোনো বিপদ হলে মহিলা টেটযাত্রীরা একশোবার শূন্য টিপে কল করবেন আর পুরুষ টেটযাত্রীরা হাজারবার শূন্য টিপে কল করবেন। টেট দেবী তৎক্ষনাৎ আপনাকে রক্ষা করতে আবির্ভূত হবেন।
আশা করি যারা পরিক্ষা দিতে যাচ্ছেন না তারাই পড়ছেন,
মজা পেলে একটা কমেন্ট করবেন।

0 comments:

Post a Comment