সম্পূর্ণ না জেনে কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে নেই


পৃথিবীতে যত ঝামেলা, ব্রেকাপ, ডিভোর্স হচ্ছে,
তার অনেকগুলোর কারন একটাই, সেটা হল ভুল বোঝাবুঝি।
আমরা সাধারণত ছোট একটা ঘটনা দেখে বা অন্যের কাছে কিছু কথা শুনে নিজের প্রিয়জনেদের সাথে খারাপ আচরণ করি।
এটা কোনোভাবেই যুক্তিসঙ্গত নয়।
আগে সমস্ত কিছু যাচায় করে নিতে হবে এবং যা করার ঠাণ্ডা মাথায় করা উচিত।
রাগ করে কিছু একটা হটাত করে একদম করা উচিত নয়।
এই ব্যাপার নিয়েই একটা গল্প আপনাদের শোনাবো।
তাহলে আর কথা নয়, পড়তে থাকুন...
একটা ছেলে তার বাবাকে বলছে, সামনের মাসে আমার পরীক্ষার রেজাল্ট দেবে।
আমি A+ পেলে আমাকে একটা মটর বাইক কিনে দিতে হবে।
পরীক্ষার রেজাল্টের দিন ছেলেটি খুব খুশী হয়ে বাবার কাছে এসে বলছে বাবা আমি A+ পেয়েছি।
এইবার কিন্তু আমাকে একটা বাইক কিনে দিতেই হবে।
বাবা বললেন, আমি তোমার উপহার তোমার পড়ার টেবিলের উপর রেখে এসেছি।
ছেলেটি গিয়ে দেখল একটা বাক্স।
তো ছেলেটি ভাবতে লাগল সেটাতেই চাবি আছে, কিন্তু খুলে দ্যাখে তার ভিতরে একটা গীতা রয়েছে।
ছেলেটি রাগ করে বাবার সাথে কথা বলা বন্ধ করে দিল এবং কয়েকদিন পরেই বিদেশে চলে গেল পড়াশোনার জন্য।
বিদেশ যাওয়ার পর বাবার সাথে কোন যোগাযোগ করেনি ছেলেটা।
কয়েক বছর পর একদিন ফোন আসল ছেলেটির কাছে।
জানতে পারল বাবা খুব অসুস্থ, কিন্তু রাগের কারনে ছেলেটি বাবাকে দেখতে যায়নি।
কয়েকদিন পর ছেলেটির কাছে আরেকটা ফোন আসে।
জানতে পারল তার বাবা মারা গেছেন।
বাবা মারা যাবার পর ছেলেটি বাড়ি আসলো কারণ ঘরবাড়ি, জমিজায়গা সব তার নামে করে দিয়ে গেছেন তার বাবা এবং সেসব তাকেই দেখাশোনা করতে হবে এখন থেকে।
একদিন ছেলেটির তার বাবার কথা মনে পড়ল এবং বাবার ঘরে গিয়ে কাঁদতে লাগল।
হঠাৎ দেখল তার বাবার পড়ার টেবিলের উপরে রাখা সেই বাক্স, যে বাক্স তার বাবা তাকে দিয়েছিলেন উপহার হিসেবে।
ছেলেটি এসে বইটা হাতে নিলো এবং পড়া শুরু করল।
হঠাৎ বইয়ের ভিতর থেকে একটা চাবি ও একটা চিঠি নিচে পড়ল।
চিঠিতে লিখা ছিল,
বাবা আমি অনেক খুশী যে তুমি A+ পেয়েছ। আমি চাইব তুমি জীবনের পরীক্ষাতেও এই ভাবে A+ পাও।
আর এই চাবিটা হচ্ছে তোমার নতুন মটর-বাইকের চাবি, আমাদের গ্যারেজে রাখা আছে তোমার নতুন বাইক।
ছেলেটির চোখে জল চলে আসলো।
ছেলেটি গ্যারেজে গেল এবং দেখতে পেল তার পছন্দের বাইক সেখানে রাখা।
সমাপ্ত

0 comments:

Post a Comment